আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টার

এতিমদের পূনর্বাসন, সুরক্ষা, মাতৃত্বের স্নিগ্ধ পরশ এবং সর্বোপরি আলোকিত মানুষ হিসেবে সমাজে সুপ্রতিষ্ঠিতকরণের লক্ষ্যে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলা যশোর শহরের প্রাণকেন্দ্রে বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজ সেবক মরহুম শেখ আকিজ উদ্দিনের অনুপ্রেরণায় এবং খ্যাতিমান শিক্ষাবিদ মরহুম অধ্যাপক শরীফ হোসেনের উদ্যোগে ১৯৮০ সালে আদ্-দ্বীন তার শুভ যাত্রা শুরু করে। আদ্-দ্বীন অতিদরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য স্বাস্থ্যসেবা, স্বাস্থ্যশিক্ষা, সাধারণ শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং আয়বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রমে সমাজের পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক পর্যায়ের মহিলাদের সম্পৃক্তকরণের লক্ষ্যে ইসলামী শরীয়াহ্ মোতাবেক পরিচালিত “কমিউনিটি হেলথ্ এ্যান্ড মাইক্রোফাইনান্স” কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র বিনিয়োগ কর্মসূচিকে সার্বজনীনভাবে মানুষের দ্বারপ্রান্তে পৌছে দিতে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। বর্তমানে আদ্-দ্বীন ওয়েফেয়ার সেন্টারের “কমিউনিটি হেলথ্ এ্যান্ড মাইক্রোফাইনান্স” কার্যক্রমের অধীনস্ত ১৪৫ টি শাখা অফিসের মাধ্যমে ১৮০০ জন দক্ষ জনবলের সমন্বয়ে ১৬ টি জেলার ৩ লক্ষাধিক প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

এ দেশের সিংহভাগ মানুষ ন্যূনতম মৌলিক অধিকার থেকে আজও বঞ্চিত। বিশেষ করে অসচেতনতা, মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবার অপ্রতুলতা, ব্যয়বহুল স্বাস্থ্যসেবা, সহজে মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার জটিলতা এবং অনুকূল পরিবেশের অভাব এদেশের মানুষের মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হওয়ার অন্যতম কারণ। এই প্রেক্ষাপটে সবার সাধ্যের মধ্যে মানসম্মত, সহজলভ্য এবং সাশ্রয়ী মূল্যে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতকরণ ও দক্ষ চিকিৎসক তৈরির লক্ষ্যে আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশন ঢাকা, খুলনা, যশোর ও কুষ্টিয়া জেলা সদরে প্রতিষ্ঠা করেছে ৪ টি মেডিকেল কলেজ । স্বল্প খরচে মানসম্মত চিকিৎসাসেবা প্রদানের পাশাপাশি আদ্-দ্বীন ন্যূনতম ব্যয়ে রেজিস্টার্ড নার্স, মিডওয়াইফ, মেডিকেল টেকনোলোজিষ্ট এবং চিকিৎসক তৈরির লক্ষ্যে ৩ টি নার্সিং ইনস্টিটিউট, ১ টি মিড ওয়াইফারী ইনস্টিটিউট, ১ টি মহিলা মেডিকেল টেকনোলজি ইনস্টিটিউট, ১ টি মহিলা মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। জম্ম লগ্ন থেকে অদ্যবধি আদ্-দ্বীন মানবতার সেবায় অতন্ত্রপ্রহরী রুপে মানুষের পাশে থেকে কাজ করে চলেছে।

সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে আদ-দ্বীন বিভিন্ন প্রকার সামাজিক উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম পরিচালনায় সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমে সর্বজন স্বীকৃত মানবিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রহণযোগ্যতা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। এতিম শিশুদের পূণর্বাসন, বিনামূল্যে চোখের ছানি অপারেশন, প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন, অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান, সমাজের পিছিয়ে পড়া সুবিধাবঞ্চিত ও আশ্রয়হীন ব্যক্তিদের মাঝে বিনামূল্যে আবাসন সুবিধা প্রদান, মানসম্মত স্বাস্থ্য নিশ্চিতকল্পে ঋণ গ্রহীতাদের জন্য স্বাস্থ্য বীমা প্রণয়ন, আদ্-দ্বীনের কর্মএলাকার গর্ভবতী মায়েদের নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত কল্পে “কমিউনিটি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস” ২৪ ঘন্টার জন্য প্রস্তুত রাখা, দুঃস্থ ও প্রান্তিক পর্যায়ের অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনাসহ নানাবিধ সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে আদ্-দ্বীন তার জম্মলগ্ন থেকে নিজস্ব অর্থায়নে কাজ করে আসছে।

Login

Notice Board

1. Office Circular