কমিউনিটি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস

পুষ্টি ও স্বাস্থ্যের নানাবিধ উন্নয়নের ফলে এ দেশের মানুষের গড় আয়ু বেড়ে হয়েছে ৭১.২ বছর। এতদাসত্বেও বাংলাদেশ ম্যাটার্নাল মর্টালিটি সার্ভের তথ্য মতে, মাতৃত্ব জনিত কারণে মৃত্যুর মধ্যে ৭ শতাংশ মারা যায় দীর্ঘ প্রসব জটিলতায়, ২০ শতাংশ মারা যায় একলাম্পশিয়ার কারণে, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মারা যায় ৩১ শতাংশ এবং গর্ভপাত জনিত সমস্যার কারণে মারা যায় ১ শতাংশ (বাংলাদেশ ম্যাটার্নাল মর্টালিটি সার্ভে-২০১০)। দেশের মানব সম্পদ উন্নয়নের অন্যতম মূলভিত্তি হলো নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত করা কিন্তু দারিদ্র্যের দুষ্টচক্র আমাদের দেশের প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষের জীবন যাত্রাকে আষ্টে-পৃষ্ঠে বেঁধে রেখেছে, যার ফলশ্রæতিতে জনগোষ্ঠীর সিংহভাগ মানুষ ন্যূনতম মৌলিক অধিকার থেকে এখনও বঞ্চিত। একই সাথে জনগণের অসচেতনতা, মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবার অপ্রতুলতা, ব্যয়বহুল স্বাস্থ্যসেবা এবং অনুকূল পরিবেশের অভাবে “নিরাপদ মাতৃত্ব” শব্দটি এখনও অমাদের কাছে এক ভয়ঙ্কার অভিজ্ঞতার নাম। এ প্রেক্ষিতে “নিরাপদ মাতৃত্বের সেবায় আদ্-দ্বীন” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টার তার “সমন্বিত স্বাস্থ্য ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ” কার্যসূচির আওতায় পরিচালিত ১২ টি শাখা অফিসে ১২ টি এ্যামবুলেন্স প্রদানের মাধ্যমে উক্ত কর্মএলাকার মানুষের নিরাপদ মাতৃত্ব ও অন্যান্য জরুরী সেবা প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষের দ্বার প্রান্তে পৌছে দিতে ১ লা অক্টোবর, ২০১৭ সাল থেকে “কমিউনিটি এ্যামবুলেন্স সার্ভিস” নামে সেবা চালু রেখেছে। আদ্-দ্বীনের কর্ম এলাকার প্রত্যন্ত অঞ্চল বিশেষ করে যেসকল এলাকায় গর্ভবতী মায়েদের উপযুক্ত স্বাস্থ্য সেবার যথেষ্ট অপ্রতুলতা রয়েছে সেই সকল অঞ্চলের গর্ভবতী মায়েদের নিরবিচ্ছিন্ন সেবা নিশ্চিতকল্পে ১২টি এ্যাম্বুলেন্সের সমন্বয়ে বিনা মূল্যে “কমিউনিটি এ্যামবুলেন্স সার্ভিস” ২৪ ঘন্টা চালু রাখা হয়েছে। আদ-দ্বীনের ক্ষুদ্র বিনিয়োগ কর্মসূচির আন্তর্ভূক্ত নয় এমন গর্ভবতী মায়েদের জন্য রাত ৮.০০ ঘটিকা থেকে সকাল ৬.০০ ঘটিকা পর্যন্ত বিনা মূল্যে এ্যামবুলেন্স সেবা অব্যাহত রয়েছে। অন্যন্য রোগী পরিবহনের জন্য কিলোমিটার প্রতি ২৫ টাকা ভাড়া প্রদান সাপেক্ষে এ্যামবুলেন্স সেবা গ্রহণের সুযোগ রয়েছে।

Login

Notice Board

1. Office Circular